কুলাউড়ায় অগ্নিকান্ডে ৮টি দোকান পুড়ে কয়েক লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি


বিশেষ প্রতিনিধিঃ কুলাউড়া পৌর শহরের স্টেশন রোড সংলগ্ন পরিনগর রেল কলোনীর একটি মার্কেটে আগুন লেগে প্রায় ৮টি দোকান পুড়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এর মধ্যে দুইটি দোকানের প্রায় পুরোটাই পুড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি।

ঘটনার খবর পেয়ে, দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রায় দেড়ঘন্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু তার আগেই দোকানগুলোতে থাকা মূল্যবান মালামাল পুড়ে যায়। অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে সোমাবার (৭ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে। হঠাৎ আগুনের ধোঁয়া দেখে দমকল বাহিনী (ফায়ার সার্ভিস) কে খবর দেন স্থানীয়রা। তাৎক্ষনিক ফায়ার সার্ভিসের টিম ঘটনাস্থলে পৌছানোর ফলে আগুন থেকে রক্ষা পায় আশপাশে অবস্থিত আরো কয়েকটি দোকান। কি কারনে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে তা এখনো জানা যায়নি। তবে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের কারনে আগুনের সূত্রপাত হতে পাড়ে বলে প্রাথমিক ধারনা করছেন কুলাউড়া ফায়ার সার্ভিস।

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে আগুন লাগার খবর পেয়ে ফায়ার স্টেশনের অফিসার মোঃ বেলায়েত হোসেনের নেতৃত্বে ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট ও স্থানীয় স্কাউট সদস্যদের যৌথ প্রচেষ্টায় এবং উপস্থিত জনসাধারণের সহযোগীতায় দেড় ঘণ্টা পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে। পৌরসভার সাবেক কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতই এর নামে পরিচিত আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত মার্কেটটি। ওই মার্কেটের আব্দুস সোবহান নিয়াজি মালিকানাধীন নিয়াজি টি হাউজ ও সাজু মিয়ার মালিকানাধীন সাজু স্টোর প্রথম দুইটি দোকানের প্রায় সব কিছু পুড়ে ছাঁই হয়ে যায়। ওই মার্কেটে অবস্থিত কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম. আতিকুর রহমান আখই পরিচালিত একটি এনজিও পায়রা ঋণদান সমবায় সমিতির অফিস ও কম্পিউটার ও তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল, সাবেক কাউন্সিলরার মতইয়ের নিজস্ব অফিস, সাজু মিয়ার ভূসি মালের দোকান, তাজুল ইসলামের ভূসিমালের দোকান, তাজ উদ্দিনের মালিকানাধীন একটি হারবাল মেডিসিনের দোকান, মাহা এন্টারপ্রাইজ, কাজী জসীম উদ্দিন পরিচালিত কাজি অফিসের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে।

কুলাউড়া মুক্ত স্কাউট গ্রুপের সম্পাদক মোঃ সামসুউদ্দিন বাবু জানান, ধোঁয়া দেখে আমরা দৌঁড়ে এসে ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেই। পরে ফায়ার সার্ভিস ও আমাদের সকলের প্রচেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে।

কুলাউড়া ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ক্ষতিগ্রস্থ মাহা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী এম. আতিকুর রহমান আখই বলেন, মার্কেটের প্রায় ৮টি দোকানের সবকিছু পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। অবশিষ্ট কিছুই থাকেনি আগুনের শিখা থেকে। এছাড়াও এনজিও পায়রা ঋণদান সমবায় সমিতির অফিস ও কম্পিউটার ও ব্যবহৃত মোটরসাইকেলসহ আগুনে পুড়ে ৮টি দোকানের প্রায় ৪০ থেকে ৫০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানান।

এদিকে কুলাউড়া ফায়ারসার্ভিসে কর্মরত ফায়ার ম্যান মোহাম্মদ তপন ভুইয়া বলেন, আগুনে ক্ষয়ক্ষতির পরিমান প্রায় ১০/১৫ লক্ষ টাকার ধারনা করা হচ্ছে। সময়মতো ফায়ার সার্ভিস উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণ করায় ওই মার্কেটের দোকানদারদের কয়েক লক্ষ টাকা মালামাল উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

Share on Google Plus

About daily bd mail

ডেইলি বিডি মেইলেঃ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি
    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment