পাকিস্তান-ভারতকে সংলাপে বসার আহ্বান মালালার


অনলাইন ডেস্কঃ পাকিস্তান-ভারত সীমান্তে যুদ্ধাবস্থায় শঙ্কা প্রকাশ করেছেন নোবেল জয়ী পাকিস্তানের মানবাধিকার কর্মী মালালা ইউসুফজাই। দুই দেশের সীমান্ত পারের বাসিন্দাদের নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে পাকিস্তান ও ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে আলোচনায় বসায় আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।


বুধবার টুইটারে এক পোস্টে এ আহ্বান জানান তিনি। মাইক্রোব্লগিং সাইটটিতে ‘সে নো টু ওয়্যার’ হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেন এ কিশোরী।

মালালা যত দ্রুত সম্ভব এ যুদ্ধাবস্থা বন্ধে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে একটি অর্থবহ সংলাপে বসার আহ্বান জানান। তিনি দীর্ঘদিন ধরে চলমান কাশ্মীর সংকটের স্থায়ী সমাধানের আহ্বানও জানান।

টুইটারে মালালা ইউসুফজাইয়ের লেখা পোস্টটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘আমি এই কঠিন পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি সত্যিকার নেতৃত্ব প্রদর্শনের আহ্বান জানাচ্ছি। আপনারা বসুন, হাত মেলান এবং সংলাপের মাধ্যমে বর্তমান সংঘাত ও দীর্ঘদিনের কাশ্মীর সংকটের সমাধান করুন।

যুদ্ধের ভয়াবহতা সম্পর্কে অবগত সবাই একমত যে, প্রতিশোধ কখনই সঠিক পথ নয়-একবার শুরু হলে তা শেষ হতে চায় না। চলমান যুদ্ধগুলোর কারণে আজকে লাখ লাখ মানুষ ভুগছেন- আমাদের আরেকটি যুদ্ধের দরকার নেই। এখন দুর্দশাগ্রস্ত মানুষগুলোকেও সামলাতে পারে না আমাদের বিশ্ব।

দুই দেশের নাগরিকরাই জানেন যে, সন্ত্রাসবাদ, দারিদ্র্য, অশিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবা সংকটই আসল শত্রু- তারা একে অপরের শত্রু নয়।’

প্রসঙ্গত গত ১৪ ফেব্রুয়ারি ভারতনিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় দেশটির আধাসামরিক বাহিনীর গাড়িবহরে হামলায় অন্তত ৪৪ সেনা নিহত হন। এই আত্মঘাতী হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠনজইশ-ই-মোহাম্মদ। ভারত এ হামলার পেছনে পাকিস্তানের মদদ রয়েছে বলে দাবি করে আসছে।

এই হামলার জেরে গত মঙ্গলবার কাশ্মীরের নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাকিস্তানের বালাকোটে বিমান হামলা চালায় ভারতীয় বাহিনী। হামলায় ২০০ থেকে ৩০০ জঙ্গি নিহত হয় বলে দাবি করেছে দেশটি।

এখানেই থেমে নেই গত বুধবার পাকিস্তান সীমান্তে ভারতীয় দুই যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করে পাকিস্তান সেনারা। জবাবে ভারত পাকিস্তানের দুটি যুদ্ধবিমানকে ভূপাতিত করে।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে দুই দেশের প্রধানমন্ত্রীকে আলোচনায় বসার আহ্বান জানালেন শান্তিতে নোবেলজয়ী মালালা ইউসুফজাই। 

Share on Google Plus

About daily bd mail

ডেইলি বিডি মেইলেঃ প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা সম্পূর্ণ বে আইনি
    Blogger Comment
    Facebook Comment

0 comments:

Post a Comment